সিডনী মঙ্গলবার, ১৭ই মে ২০২২, ৩রা জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯


ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট আবেদনে সাড়া দিয়ে দেশটিতে সাঁজোয়া যান পাঠাবে অস্ট্রেলিয়া


প্রকাশিত:
৩ এপ্রিল ২০২২ ১৩:৪১

আপডেট:
১৭ মে ২০২২ ১৪:২৯

 

অস্ট্রেলিয়া শুক্রবার জানিয়েছে যে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকির আবেদনটিতে সাড়া দিয়ে দেশটিতে সাঁজোয়া যান পাঠাবে অস্ট্রেলিয়া। এর আগে অস্ট্রেলিয়ার সংসদে দেয়া এক বক্তব্যে ইউক্রেনের জন্য অতি প্রয়োজনীয় সামরিক সহায়তার আবেদন জানিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট জেলেন্সকি।

বৃহস্পতিবার ইউক্রেন থেকে ভিডিওতে সংযুক্ত হয়ে অস্ট্রেলিয়ার আইনপ্রণেতাদের উদ্দেশে প্রেসিডেন্ট জেলেন্সকি বলেন, দুর্বৃত্তের বিরুদ্ধে লড়াই করতে হলে অবশ্যই অস্ত্রসজ্জিত হতে হবে।

তিনি অস্ট্রেলিয়ার কাছে বুশমাস্টার নামক সাঁজোয়া যান পাঠানোর আহ্বান জানান। যানগুলো অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া প্রদেশের বেনডিগো শহরে ফ্রান্সের থেলিস নামক কোম্পানী কর্তৃক প্রস্তুতকৃত। সংঘর্ষপূর্ণ অঞ্চলের মধ্য দিয়ে ১০ জন পর্যন্ত সৈনিককে নিরাপদে বহন করতে সক্ষম ওই সাঁজোয়া যানটি। সেগুলোতে ব্যালিস্টিক প্রতিরক্ষার ব্যাপক ব্যবস্থা রয়েছে এবং সেগুলোর ইংরেজী ‘ভি’ আকৃতির মেঝেটি, প্রথাগত সমান মেঝের চাইতে অধিক কার্যকরভাবে বিস্ফোরকের হামলা সামাল দিতে সক্ষম।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী পিটার ডাটন শুক্রবার বলেন, বর্তমানে সেগুলো সরবরাহের পরিকল্পনা করা হচ্ছে। তবে, কবে বা কয়টি সাঁজোয়া যান সরবরাহ করা হবে সে বিষয়টি অস্ট্রেলিয়ার কর্মকর্তারা নিশ্চিত করেননি।


ইউক্রেনে ‘রাশিয়ার নিষ্ঠুর, অবৈধ এবং অন্যায় আক্রমণটির’ নিন্দা জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন।

ইউক্রেনের সাথে রাশিয়ার যুদ্ধ আরম্ভ হওয়ার এক মাস পার হয়ে গিয়েছে এবং অস্ট্রেলিয়া ইতোমধ্যেই ইউক্রেনে ক্ষেপণাস্ত্র এবং মানবিক সহায়তা সামগ্রী প্রেরণ করেছে। এছাড়াও রাশিয়ার শত শত রাজনীতিবিদ, সামরিক কমান্ডার ও ব্যবসায়ীদের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে অস্ট্রেলিয়া। দেশটি এখন রাশিয়া এবং বেলারুশ থেকে আমদানির উপর ৩৫ শতাংশ শুল্ক আরোপ করবে।

এই পদক্ষেপগুলোকে মরিসন ‘কোন একক দেশের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়া কর্তৃক জারিকৃত সর্ববৃহৎ নিষেধাজ্ঞা’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।


বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top