সিডনী বৃহঃস্পতিবার, ৯ই ডিসেম্বর ২০২১, ২৫শে অগ্রহায়ণ ১৪২৮


বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ছাড়াল ২ লাখ ৩০ হাজার, প্রাণহানি প্রায় ৯ হাজার


প্রকাশিত:
১৯ মার্চ ২০২০ ১১:১১

আপডেট:
১৯ মার্চ ২০২০ ১২:১১

ফাইল ছবি

প্রভাত ফেরী: বিশ্ব জুড়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দুই লাখ ৩০ হাজার ছাড়িয়েছে। বিশ্বের ১৭২টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া এ ভাইরাসে প্রাণ গেছে প্রায় ৯ হাজার মানুষের। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স সেন্টার ফর সিস্টেমস  সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বলছে, বৃহস্পতিবার বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৩০ হাজার ৬৫২ জনে। এ ছাড়া এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন প্রায় ৯ হাজার এবং সুস্থ হয়েছেন ৮৬ হাজার। চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে উৎপত্তি হয়ে বিশ্ব জুড়ে ছড়িয়ে পড়া এ ভাইরাসের নতুন প্রাণকেন্দ্র হিসেবে ইউরোপকে ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ইতালিতে এ ভাইরাসের প্রকোপ ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। গত তিন দিনে দেশটিতে প্রতিদিন গড়ে তিন শতাধিক মানুষের প্রাণ কেড়েছে করোনা।

এ ভাইরাসে এখন পর্যন্ত বিশ্বে সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি ঘটেছে চীন, ইতালি, ইরান, স্পেন এবং জার্মানিতে। শুধু চীনেই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮০ হাজার ৮৯৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ২৩৭ জনের। এ ছাড়া দেশটিতে সুস্থও হয়েছেন ৬৯ হাজার ৬১৪ জন। এ ছাড়া ইতালিতে ৩১ হাজার ৫০৬ জন আক্রান্ত, মৃত্যু ২ হাজার ৫০৩, সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৯৪১ জন। ইরানে আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ হাজার ৩৬১, মৃত্যু ১ হাজার ১৩৫ এবং সুস্থ ৫ হাজার ৩৮৯ জন।

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তুরস্কে প্রথমবারের মতো একজনের মৃত্যু হয়েছে। সরকারি ঘোষণায় এ মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে আরও জানানো হয়েছে যে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণের চেয়েও বেশি হয়েছে। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা এখন ৯৮ জন। তুরস্কের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফাহরেতিন কোকা এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, করোনায় আক্রান্ত এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তার বয়স ৮৯ বছর। চীনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এক ব্যক্তির সংস্পর্শে আসার পর তার শরীরের করোনাভাইরাসটির উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়। তারপর তিনি চিকিৎসাধীন মারা গেলেন।

আর করোনা নিয়ে বর্তমানে সবচেয়ে বেশি ভয়াবহ অবস্থায় আছে ইতালি। দেশটিতে গত একদিনেই মারা গেছে ৪৭৫ জন। এছাড়া দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা যেভাবে বাড়ছে তাতে চীনকেও ছাড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top