সিডনী বৃহঃস্পতিবার, ৯ই ডিসেম্বর ২০২১, ২৫শে অগ্রহায়ণ ১৪২৮


বাংলাদেশিসহ ৯৫ অবৈধ অভিবাসী মালয়েশিয়ায় আটক


প্রকাশিত:
১৮ নভেম্বর ২০২১ ১২:৫০

আপডেট:
৯ ডিসেম্বর ২০২১ ১৯:০৪

 

প্রভাত ফেরী:  মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) গভীর রাতে জালান দেওয়ান সুলতান সুলাইমান ১-এর পাঁচতলা দোকানঘরে সারিবদ্ধভাবে মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশনের অভিযান চালিয়ে এদের আটক করা হয়।

তিন ঘন্টার অভিযানে ১৫০ জন অভিবাসীর মধ্যে থেকে ৯৫ জন অভিবাসীর কোনো বৈধ কাগজপত্র না থাকায় তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতদের মধ্যে ৫২ জন পুরুষ, ৪৩ জন মহিলা। ইন্দোনেশিয়ান, বাংলাদেশ, নেপাল পাকিস্তানি রয়েছেন বলে জানিয়েছেন, কুয়ালালামপুর ফেডারেল টেরিটরি ইমিগ্রেশন ডিরেক্টর, স্যামসুল বদরিন মহসিন। তবে এ অভিযানে কতজন বাংলাদেশি আটক হয়েছেন তা এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত জানা যায়নি।

অভিযান চালানোর আগে দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ অভিবাসীদের কার্যকলাপ ও গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করে আসছিল দেশটির এফোর্সমেন্টের কর্মকর্তারা। আটককৃতরা বেশিরভাগই নির্মাণ সাইটে পরিচ্ছন্নতা ও শ্রমিক হিসাবে কাজ করছিল। অনেকের পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে এবং কারো কারো কাছে কোনো বৈধ ভ্রমণ নথি নেই এবং অবৈধভাবে এলাকায় বসবাস করছিল।

এছাড়া তাদের বাসস্থানটিও খুব বিপজ্জনক ছিল। যেখানে বৈদ্যুতিক তার এবং জলের কলের সংযোগগুলি সঠিকভাবে ইনস্টল করা হয়নি, বোর্ড ব্যবহার করে পাঁচটিরও বেশি ছোট কক্ষ মালিক দ্বারা তৈরি করা হয়েছে এবং অবৈধ অভিবাসীদের ভাড়া দেওয়া হয়েছে। “অগ্নিকান্ডের ক্ষেত্রে স্থানটি সংকীর্ণ এবং অনিরাপদ এবং তারা সংরক্ষণ করতে পারে না কারণ বোর্ড রোমের অবস্থা খুবই বিপজ্জনক ছিল বলে জনান, কুয়ালালামপুর ফেডারেল টেরিটরি ইমিগ্রেশন ডিরেক্টর, স্যামসুল বদরিন মহসিন।

আটককৃতদের বুকিত জলিল ইমিগ্রেশন ডিপোতে রাখা হয়েছে এবং ইমিগ্রেশন আইন ১৯৫৯/৬৩ এর ধারা ৬ (১) (সি) এবং ১৫ (১) (সি) এর অধীনে আরোও তদন্ত করা হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন ।

 



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top