সিডনী শুক্রবার, ৩০শে জুলাই ২০২১, ১৫ই শ্রাবণ ১৪২৮


কলকাতার রাস্তায় চলবে সিএনজি বাস


প্রকাশিত:
২২ জুন ২০২১ ১৪:০১

আপডেট:
৩০ জুলাই ২০২১ ১৬:২৪

 

প্রভাত ফেরী: কলকাতায় এবার ছুটবে সিএনজি বাস। এমনটাই আশ্বাস দিলেন পরিবহণমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। ফলে পেট্রো-ডিজেলের চড়া ডামের বাজারে বাস ভাড়া কমার আশায় যাত্রীরা। জানা গিয়েছে, সোমবার বেঙ্গল গ্যাস কোম্পানির সঙ্গে বৈঠকে বসে পরিবহণ দফতরের আধিকারিকরা। পরিবহণ মন্ত্রীর উপস্থিতিতে সেখানে দীর্ঘক্ষণ সিএনজি চালিত বাস নিয়ে আলোচনা হয়। এ বিষয়ে একটি মউও স্বাক্ষরিত হয়েছে বলে খবর। কবে থেকে চড়া যাবে সিএনজি বাসে?
মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, 'পরিবহণ দফতরের সঙ্গে বেঙ্গল গ্যাস কোম্পানির মউ স্বাক্ষরিত হয়েছে। অবিলম্বে কলকাতা পুরসভা ও সংলগ্ন এলাকার বাস ডিপোগুলিতে সিএনজি সাপ্লাইয়ের কাজ শুরু করা হবে। কিছুদিনের মধ্যে পাইপ লাইনের ব্যবস্থা করা হবে। তবে আপাতত ক্যাপসুল বেসিসে গ্যাস দেবে।' একইসঙ্গে তিনি আশ্বাস দেন, 'এক ঘণ্টায় যাতে ১৫টি বাসে সিএনজি ভরা যায়, সেরকম যন্ত্র বসানো হবে।' সিএনজি চালিত বাস পথে নামলে কেবলমাত্র দূষণরোধই নয়, ভাড়াও কমবে বলে আশাবাদী ফিরহাদ হাকিম।
অন্যদিকে, কীভাবে পেট্রল-ডিজেল চালিত বাসকে সিএনজি বাসে পরিণত করা হবে, তা নিয়েও ইতিমধ্যে সংশ্লিষ্ট ইঞ্জিনিয়ারদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন পরিবহণ দফতরের কর্মীরা। ওভারলোডিংয়ের সমস্যা মেটাতেও তৎপর পরিবহণ দফতর। কঠোর হাতে বিষয়টি মোকাবিলায় করার কথা জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম। এ বিষয়ে একাধিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। পরিবহণ মন্ত্রী বলেন, 'ওভারলোডিংয়ের ক্ষেত্রে ন্যাশনাল হাইওয়েতে সমস্যা না হলেও রাজ্যসড়কের ক্ষতি হচ্ছে। এবার থেকে নিয়মিত চেকিং চলবে। প্রয়োজনে মাঝ রাস্তায় কমিয়ে দেওয়া হবে লোড। কতটা ওভারলোড ছিল, কতটা নামানো হয়েছিল, সমস্ত তথ্য যাবে জেলাশাসকের কাছে।' এমনকী, ওভারলোডিংয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনে আইনি পদক্ষেপও নেওয়া হতে পারে বলে জানান পরিবহণ মন্ত্রী।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top