সিডনী সোমবার, ১২ই এপ্রিল ২০২১, ২৯শে চৈত্র ১৪২৭


অস্ট্রেলিয়ায় ক্ষুব্ধ অক্টোপাসের কবলে এক সাঁতারু


প্রকাশিত:
৪ এপ্রিল ২০২১ ১৪:০১

আপডেট:
৪ এপ্রিল ২০২১ ১৪:০২

 

প্রভাত ফেরী: অস্ট্রেলিয়ার পশ্চিমাঞ্চলের এক সমুদ্রসৈকতে হয়তো এমন বিরক্তির শিকার হয়েছিল অক্টোপাসটি। সে কারণে ক্ষুব্ধ হয়ে এটি পা বা শুঁড় দিয়ে চাবুকের মতো ঘা করে বসেছে এক ব্যক্তিকে। ওই ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে।
বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ভূতাত্ত্বিক ল্যান্স কার্লসন ছুটির দিনে সৈকতে সাঁতার কাটার সময় ওই অক্টোপাসের কবলে পড়েন। ভিডিওতে দেখা যায়, অক্টোপাসটি শুঁড় দিয়ে কার্লসনকে চাবুকের মতো করে আঘাত করছে। কার্লসনের ঘাড় ও পিঠে আঘাত করার পরও তাঁকে তাড়া করে হাতের ওপর আক্রমণ করে বসে অক্টোপাসটি। এতে কার্লসনের ত্বকের ওপর লাল দাগ হয়ে যায়। ওই যন্ত্রণা থেকে
মুক্তি পেতে সঙ্গে সঙ্গে ত্বকের ওপর কোলা ঢেলে দেন তিনি।
সাবেক একজন লাইফগার্ড অস্ট্রেলিয়ার সেভেন নিউজকে বলেন, কোনো সামুদ্রিক প্রাণীর শুঁড় বা হুলের আঘাত পেলে চিকিৎসা হচ্ছে ভিনেগার। কিন্তু ওই সময় ভিনেগার না থাকায় কার্লসনকে ভিন্ন ব্যবস্থা নিতে হয়। তিনি জানতেন, অ্যাসিডজাতীয় কোনো কিছু কাজে লাগতে পারে। তাই তিনি কোলা ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নেন। কার্লসন বলেন, তাঁর রিসোর্টের কাছেই ঘটনাটি ঘটে। একটি স্ট্রিংরে (একজাতীয় মাছ) হয়তো কোনো পাখিকে ধরেছে ভেবে তিনি কাছাকাছি গিয়েছিলেন। সঙ্গে ছিল দুই বছর বয়সী তাঁর মেয়েও। কার্লসন ওই সময় ভিডিও ধারণ করছিলেন। ঠিক এ সময়ই বিরক্ত হয়ে থাকতে পারে অক্টোপাসটি। সে সময় তাদের দিকে তেড়েও এসেছিল অক্টোপাসটি। পরে তিনি যখন একা
সাঁতার কাটতে নামেন, তখন তাঁর ওপর আক্রমণ চালিয়ে বসে এটি। কার্লসন বলেন, ‘পানিও ছিটকে আমার চশমা ঘোলা হয়ে গিয়েছিল। আমি হতবুদ্ধি হয়ে পড়ি।’


বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top