সিডনী মঙ্গলবার, ১৮ই জানুয়ারী ২০২২, ৪ঠা মাঘ ১৪২৮


অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডে বুয়েটিয়ানদের মিলনমেলা ২০২১ অনুষ্ঠিত


প্রকাশিত:
২১ ডিসেম্বর ২০২১ ১৪:৩৪

আপডেট:
১৮ জানুয়ারী ২০২২ ০৪:৪৮


সারা বিশ্বে ছড়িয়ে আছে বুয়েটিয়ানরা। প্রায়শই তাদের স্মৃতিবিধুরতায় পেয়ে বসে। প্রাণের সেই আকুতি থেকেই গত ২৭ নভেম্বর ২০২১ তারিখে কুইন্সল্যান্ডে বসবাসরত বুয়েটিয়ানরা একটি মিলনমেলা আয়োজন করে স্থানীয় ওয়াই,এম,সি,এ স্প্রিংফিল্ড লেকস হলে। ২০১৬ সাল থেকে প্রতি বছর এ রকম মিলনমেলা হয়ে আসছিলো কিন্তু কোভিডের কারনে গত বছর সেটি আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। দুই বছর পরে অনুষ্ঠিত এবারের মিলনমেলায় তাই এ যাবৎকালে সর্বোচ্চ সংখ্যক বুয়েটিয়ান অংশগ্রহন করে উৎসবমুখরতার সাথে। কোভিডের সম্ভাব্য বিধি নিষেধের কারণে প্রথমে স্থানীয় একটি উদ্যানে অনুষ্ঠানটি হওয়ার কথা ছিলো। তবে বৃষ্টিমুখর আবহাওয়ার পূর্বাভাস বিবেচনায় অনুষ্ঠানের আয়োজন নিয়ে সাময়িক দুশ্চিন্তা দেখা দেয়। কিন্তু আয়োজকদের সর্বাত্মক প্রচেষ্টায় শেষ পর্যন্ত একটি ঘরোয়া অনুষ্ঠানস্থল পাওয়া সম্ভব হয়। চমৎকার এই মিলনমেলায় ব্রিসবেন ছাড়াও গোল্ডকোস্ট, এবং সানসাইনকোস্ট থেকে এসে বুয়েটিয়ানরা সপরিবারে অংশগ্রহন করেন। মিলনমেলায় খেলাধুলার অংশ হিসেবে মহিলাদের ক্রিকেট বল দিয়ে স্ট্যাম্পে আঘাত এবং ছোটদের একটি বাক্সে টেনিস বল ফেলা ছিল বেশ প্রতিযোগিতাপূর্ন। ছোটদের জন্য আরো ছিলো স্মৃতি শক্তি পরীক্ষার একটি প্রতিযোগিতা। মিলনমেলার অন্যতম আকর্ষন ছিল সবার অংশগ্রহনে হাউজি খেলা। প্রতিযোগিতাগুলোতে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অগ্রজ সিনিয়র বুয়েটিয়ানরা। এ ছাড়া বুয়েটিয়ানদের সবার ছেলে মেয়েদের হাতে একটি করে সৌজন্য পুরস্কার দেয়া হয়। অনুষ্ঠানসূচীর অংশ হিসাবে মধ্যাহ্ন ভোজের কিছু আগে বুয়েটিয়ানরা মিলনমেলা ২০২১ এর কেক কাটেন। সঙ্গে চলছিলো আগত বুয়েটিয়ান এবং তাদের পরিবারবর্গের ছবি তোলা পর্ব। মধ্যাহ্ন ভোজের শেষের দিকে পরিবেশিত হয় বুয়েটিয়ান মাহমুদ জে রশিদ ভাই ও ভাবীর তৈরি মিষ্টি এবং তাদের ছেলে নিশান ছিলো অনুষ্ঠানের সকল ছবি তোলার দায়িত্বে। স্বল্পতম সময়ে একে অপরের সাথে দেখা সাক্ষাত, কুশালাদি বিনিময়, এবং একসাথে নানা মজা করার মধ্য দিয়ে প্রবাসী বুয়েটিয়ানরা ফিরে যায় স্মৃতি বিজড়িত বুয়েটের দিনগুলিতে। শীঘ্রই আবারো একটি মিলনমেলার আশাবাদ রেখে অনুষ্ঠান শেষ হয়। পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সফল মিলনমেলার জন্য বুয়েটিয়ানরা আয়োজকদের ধন্যবাদ দেন। এই মিলনমেলার আয়োজনের নানারকম দায়িত্বে ছিলেন বুয়েটিয়ান নিউটন এম এ হাকিম, মাহমুদ জে রশিদ, শেখ বাশার উদ্দিন, নয়ন হোসেন, মামুন রহমান, এম মাহমুদুল হাসান, হাবিবুল্লাহ ভুইয়া, এবং আশরাফুর রহমান । 


বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


Top